মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১০:১০ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
বিশ্বনাথে আ’লীগের পৌর ইউনিয়ন কমিটিতে স্থান পাননি সদ্য বিলুপ্ত কমিটির ৩৯ নেতা স্থান হয়েছে বিএনপি নেতা  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন হলেন বিশ্বনাথের ড. রইছ উদ্দিন  বিশ্বনাথে খাজাঞ্চী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রীতিগঞ্জ বাজারে নির্মাণের দাবি বিশ্বনাথে আমন ধানের বাম্পার ফলন বিশ্বনাথে অসুস্থ আল- ইসলাহ’র মহাসচিবের পাশে আর-রাহমান ট্রাস্টের সভাপতি উৎসব মূখর পরিবেশে চৌহালীতে ৩৫৫ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল বিশ্বনাথে মাঠে মাঠে শীতকালীন সবজি বিশ্বনাথে পুত্রবধূর নির্যাতনে প্রতিবন্ধী ননদ শাশুড়ীসহ আহত- ২ বিশ্বনাথে সম্পত্তি দখলে প্রবাসীকে হত্যার চেষ্টা অবশেষে সিলেটে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

চার বছরের শিশুকে হত্যা করে ডোবায় ফেলে দিলেন সৎমা

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে শিশুমেয়েকে হত্যার অভিযোগে সৎমা আটক হয়েছেন। অভিযুক্ত সৎমা রিনা আক্তার শিশুমেয়েকে হত্যার পর পানিতে ডুবে মরার খবর প্রচার করে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার ডোয়াইল ইউপির মাজালিয়া গ্রামের নিজবাড়ি থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। শনিবার দুপুরে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, বুধবার রাত ৮টার দিকে মাজালিয়া (ভূঁইয়াপাড়া) গ্রামের আবুল কালামের চার বছরের মেয়ে কনা আক্তারকে ঘরের পাশে একটি ডোবায় পড়ে থাকতে দেখে বাড়ির লোকজন। শিশুকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পরে তার সৎমা রিনা আক্তার শিশুটি পানিতে পড়ে মারা গেছে বলে এলাকায় প্রচার করে। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় সৎমাকে ঘিরে সন্দেহ সৃষ্টি হয়। পরে শিশুটির বাবার মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে সৎমাকে পুলিশ আটক করে থানায় নেয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসে।

শিশুর বাবা আবুল কালাম জানান, দুই বছর আগে তার প্রথম স্ত্রী সালমা
বেগম শারীরিক অসুস্থতায় মারা যান। তারপর তিনি মাজালিয়া গ্রামের ঈমান আলীর মেয়ে রিনা আক্তারকে বিয়ে করেন। তার গর্ভে কোনো সন্তান না হওয়ায় সে প্রথম স্ত্রীর সন্তানকে সহ্য করতে পারতো না। এ আক্রোশে সে তার মেয়েকে গলাটিপে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে দেয়।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি আবু মো. ফজলুল করীম জানান, ওই শিশু মেয়ে পানিতে পড়ে মারা যায়নি, তাকে হত্যা করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সৎমা রিনা আক্তার পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় সৎমা শিশুটিকে ডেকে নিয়ে গলাটিপে হত্যার করে। তারপর তার লাশ পাশের ডোবার পানিতে ফেলে দেয়। এ ব্যাপারে শিশুটির বাবা আবুল কালাম বাদী হয়ে তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে সরিষাবাড়ী থানায় হত্যা মামলা করেছেন। আটককে শনিবার দুপুরে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved