মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
বিশ্বনাথে আ’লীগের পৌর ইউনিয়ন কমিটিতে স্থান পাননি সদ্য বিলুপ্ত কমিটির ৩৯ নেতা স্থান হয়েছে বিএনপি নেতা  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন হলেন বিশ্বনাথের ড. রইছ উদ্দিন  বিশ্বনাথে খাজাঞ্চী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রীতিগঞ্জ বাজারে নির্মাণের দাবি বিশ্বনাথে আমন ধানের বাম্পার ফলন বিশ্বনাথে অসুস্থ আল- ইসলাহ’র মহাসচিবের পাশে আর-রাহমান ট্রাস্টের সভাপতি উৎসব মূখর পরিবেশে চৌহালীতে ৩৫৫ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল বিশ্বনাথে মাঠে মাঠে শীতকালীন সবজি বিশ্বনাথে পুত্রবধূর নির্যাতনে প্রতিবন্ধী ননদ শাশুড়ীসহ আহত- ২ বিশ্বনাথে সম্পত্তি দখলে প্রবাসীকে হত্যার চেষ্টা অবশেষে সিলেটে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

চৌহালীতে ইউপি চেয়ারম্যানের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

 

অনিয়ম, দুর্নীতি ও যৌনহয়রানি সহ নানা অভিযোগে সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার উমারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মতিন মন্ডলের অপসারণ দাবিতে ইউপি ৮ সদস্য ও স্থানীয় জনগন মানববন্ধন করেছেন। আবদুল মতিন উমারপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি। বুধবার দুপুরে সোলবাজার সড়কে ভুক্তভোগীরা এ মানববন্ধনের আয়োজন করেন। এসময় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম বেপারী, ইউপি সদস্য হেলাল উদ্দিন, আরফান আলী, মনজু সরকার, পরস, আবদুল মজিদ, রাশেদুল ইসলাম, আবদুল কাদের ও খইমুদ্দিন মোল্লা প্রমুখ। বক্তারা বলেন, উমারপুর ইউনিয়ন যমুনার দুর্গম চরে হওয়ায় চেয়ারম্যান আবদুল মতিন প্রভাব খাটিয়ে ভিজিডি ও ভিজিএফ, করোনাকালীন জিআর চাল, জেলেদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল, কর্মসৃজন প্রকল্প, এলজিএসপির সিংহভাগ বরাদ্দকৃত অর্থ আত্মসাৎ করেন। এলাকার উন্নয়ন কাজে ইউপি সদস্যদের সম্পৃক্ত না করে নিজের লোকদের দিয়ে লুটপাট করেন তিনি। এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে এর আগে এক মহিলা ইউপি সদস্যকে নির্যাতন করে কান কেটে দিয়েছিল ইউপি চেয়ারম্যান। এছাড়া এক মহিলা গ্রাম পুলিশকে যৌননির্যাতন করে চাকরিচ্যুচিত করার অভিযোগ করা হয় মানববন্ধন থেকে। তার বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরের লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। এসময় অভিযুক্ত মতিন চেয়ারম্যানের দ্রুত অপসরান দাবিতে বিক্ষোভ ও ক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে পুরো এলাকা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

© All rights reserved